sSiteTitle

`অপসাংবাদিকতা`র বিরুদ্ধে ঢাবিতে মানববন্ধন

এমসিজেনিউজ প্রতিবেদক

প্রকাশিত : ০৩:৫১ পিএম, ৯ আগস্ট ২০১৭ বুধবার | আপডেট: ১০:০৪ পিএম, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শুক্রবার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এমসিজে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের মানব বন্ধন। ছবি: এমসিজেনিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এমসিজে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের মানব বন্ধন। ছবি: এমসিজেনিউজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে ৯ আগস্ট (বুধবার) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে  ‘অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে আমরা’ শীর্ষক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
 
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সময়ে কিছু মানহানিকর, মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য ও তথ্য প্রকাশ ও প্রচারের প্রতিবাদে আয়োজিত এ মানববন্ধনে বক্তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করে তোলার ষড়যন্ত্র চলছে এই মত দেন। এতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ অ্যালমনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য, বিভাগীয় শিক্ষক-শিক্ষার্থী ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারিবৃন্দ অংশ নেন। 
 
গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও বিভাগীয় চেয়ারপার্সন অধ্যাপক মো. মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আবু আলমের সভাপতিত্বে মানবন্ধনে বক্তব্য মূল প্রেক্ষাপট উপস্থাপন করেন বিভাগীয় শিক্ষক ও অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভন্ন পর্যায়ের প্রশাসনিক দায়িত্ব থাকা শিক্ষকবৃন্দ, অ্যালামনাইদের মধ্যে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে কর্মরত সিনিয়র সাংবাদিক, বর্তমান শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এতে বক্তব্য রাখেন। তারা সকলেই বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যনির্ভর সাংবাদিকতার ওপর জোর দিয়ে সংবাদমাধ্যমে তার যথার্থ নিশ্চিত করার কথা বলেন। এছাড়াও বক্তরা উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের বিরুদ্ধে যে সব প্রতিবেদন প্রকাশিত হচ্ছে তাকে `টার্গেটেড জার্নালিজম` আখ্যা দিয়ে তার তীব্র প্রতিবাদ করেন। 
 
সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন জনাব শফিউল আলম ভূঁইয়া তাঁর বক্তব্যে বলেন, "যারা আজ উপাচার্যের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখছেন, তারা হয় সুবিধাভোগী অথবা সুবিধাবঞ্চিত। নিজেদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য ব্যক্তি আরেফিন সিদ্দিককে তারা সরিয়ে দিতে চায়।”
 
গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাবরিনা সুলতানা চৌধুরী তাঁর বক্তব্যে বর্তমান উপাচার্যের চেয়ে সফল এবং ক্যাম্পাসের বর্তমান শিক্ষাপযোগী স্থিতিশীল পরিবেশ বজায় রাখতে সক্ষম উপাচার্য কে হতে পারেন, তা গণমাধ্যমগুলোর কাছে প্রশ্ন রাখেন।
 
বিভাগের অধ্যাপক ড. নাদির জুনাইদ মানববন্ধনে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সকলের শুভবোধ জাগ্রত হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
 
মানববন্ধনে অংশ নেয়া শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ তাদের অপসাংবাদিকতা প্রতিরোধে তাদের অঙ্গীকার করেন।
 
১৫৫১ ঘণ্টা, ০৮ আগস্ট, ২০১৭