Dhaka University Mass Communication and Journalism Department News Portal

তিনদিন ব্যাপী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব সমাপ্ত

মোহাম্মদ খাইরুজ্জামান

ডিইউএমসিজেনিউজ.কম

প্রকাশিত : ০১:০৮ এএম, ২৪ নভেম্বর ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০২:০৩ এএম, ২৪ নভেম্বর ২০১৮ শনিবার

তিনদিন ব্যাপী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব সমাপ্ত

তিনদিন ব্যাপী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব সমাপ্ত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদ’ এর আয়োজনে ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে শুরু হওয়া ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য উৎসব ২০১৮’ সমাপ্ত হয় ২২ নভেম্বর ‘নিত্যপুরাণ’ নাটক মঞ্চস্থের মাধ্যমে। তিনদিন ব্যাপী এ উৎসবে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬ টায় মঞ্চস্থ হয় যথাক্রমে ‘আমিনা সুন্দরী’, ‘ক্রাচের কর্নেল’ ও ‘নিত্যপুরাণ’ এ তিনটি নাটক।

উদ্বোধনী দিন (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৬ টায় মঞ্চস্থ হয় নারীর বৈষম্য-বঞ্চনাকে তুলে ধরে প্রায় ৩০০ বছরের পুরনো লোককাহিনী ‘নছর মালুম ও ভেলুয়া সুন্দরি অবলম্ভনে ‘আমিনা সুন্দরী’। এর পরিবেশনায় ছিল থিয়েটার আর্ট ইউনিট। দ্বিতীয় দিন (২১ নভেম্বর) মঞ্চস্থ হয় নাট্যদল বটতলার পরিবেশনায় কথাসাহিত্যিক শাহাদুজ্জামানের ঐতিহাসিক উপন্যাস অবলম্বনে ‘ক্রাচের কর্নেল’। এটি কর্নেল তাহেরকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাস নিয়ে সাজানো। সমাপনী দিনে (২২ নভেম্বর) মঞ্চস্থ হয় মহাভারতের একলব্য ও অর্জুনের কাহিনীর বাস্তবতার আদলে শ্রেণি ও বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে নির্মিত ‘নিত্যপুরাণ’ নাটক। নাটকটির নির্দেশনায় ছিলেন মাসুম রেজা এবং প্রযোজনা করে দেশ নাটক।




নাটক - আমিনা সুন্দরী

 

২০ নভেম্বর বিকাল সাড়ে ৪ টায় উদ্বোধন হয় এ অনুষ্ঠানের। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘‘আমি আশা করি নাট্য চর্চা থেকে শিক্ষার্থীরা মৌলিক দর্শন গ্রহণ করবে। এ ধরনের নাটক শিক্ষার্থীরা যত বেশি দেখবে তত বেশি ইতিবাচক প্রভাব তাদের মনস্তাত্ত্বিক জগতে প্রবেশ করবে’’।

এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এর উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মফিজুর রহমান। সভাপ্রধান হিসেবে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের মডারেটর সাবরিনা সুলতানা চৌধুরী। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট নাট্যজন মাসুম রেজা, ত্রপা মজুমদার এবং মু. মাহতাব উদ্দিন আরজু পেয়েছেন ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যজন সম্মাননা’।

অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের মডারেটর সাবরিনা সুলতানা চৌধুরী বলেন, ‘‘মঞ্চনাটক এমন একটি জায়গা যেখানে সংস্কৃতির সব থেকে আত্মত্যাগী মানুষগুলো কাজ করেন। অন্যান্য মাধ্যমের শিল্পীদের নাম, খ্যাতি, অর্থ প্রাপ্তির ব্যাপার থাকলেও মঞ্চ অভিনেতাদের ক্ষেত্রে এটি একরকম ঘরের খেয়ে বনের মোষ তাড়ানোর মতো’’।

 

নাটক - ক্রাচের কর্নেল ও নিত্যপুরাণ

 
‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যজন সম্মাননা’ গ্রহণ করে মাসুম রেজা তাঁর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘‘এমন প্রাণবন্ত একটি আয়োজন দেখতে পেরে আমি মুগ্ধ। পাশাপাশি বাংলাদেশের সমস্ত আন্দোলনের সূতিকাগার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সংসদ আমাকে যে সম্মাননা দিয়েছে তাতে আমি উজ্জীবিত, সম্মানিত এবং এই সম্মাননা আমাকে অনেক প্রেরণা যোগাবে’’।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি রাগীব রহমান বলেন, ‘‘একেবারে স্বল্প মূল্যে (৫০টাকা) মানুষকে নাটক দেখার সুযোগ করে দেয়ার জন্য আমাদের এই আয়োজন। এতে বিপুল সাড়া পেয়ে আমরা আনন্দিত’’।

 

ডিইউএমসিজেনিউজ.কম/তসাজ