Dhaka University Mass Communication and Journalism Department News Portal

কলাভবনের লিফট বিড়ম্বনা

ফারজানা জামান

ডিইউএমসিজেনিউজ.কম

প্রকাশিত : ১২:৪৩ পিএম, ২৮ অক্টোবর ২০১৯ সোমবার

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বন্ধ থাকা কলাভবনের লিফট (ছবিঃ ফারজানা জামান)

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বন্ধ থাকা কলাভবনের লিফট (ছবিঃ ফারজানা জামান)

শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যবহৃত কলাভবনের প্রথম লিফট টি ২০১৬ সালে তৈরি হলেও দ্বিতীয় টি সংযোজন হয়েছে মাত্র বছর এক আগে। কিন্তু মাঝে মধ্যেই লিফটি যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে বন্ধ থাকলে শিক্ষার্থীদের সেই পুরোনো লিফট এর সামনেই দীর্ঘ লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। পুরোনোটির এর ধারণ ক্ষমতা বেশি না থাকায় একবারে অনেক জন  এটি ব্যবহার করতে পারেন না। যার কারণে শিক্ষার্থীদের অনেকটা সময় নষ্ট হয়ে যায়। লিফট সংযোজন হওয়ার আগে যে দুর্ভোগ হতো সেটি শিক্ষার্থীরা মেনে নিলেও, লিফট সংযোজন হওয়ার পরে এসব বিড়ম্বনা তারা মেনে নিতে পারছেন না।  

লিফট এর সামনে দীর্ঘ লাইন দেখে ৩য় ৪র্থ তলার শিক্ষার্থীরা সিঁড়ির পথ ধরলেও ৫ম ও ৬ষ্ঠ তলার শিক্ষার্থীদের সেই দীর্ঘ লাইনেই দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ৬ তলায় ঊঠতে গিয়ে লিফট এর সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় ১০-১৫ মিনিট। প্রতিযোগিতা করে লিফট এ উঠতে গিয়ে শিক্ষার্থীদের অনেক ভোগান্তিতে পরতে হয়।  যারা শারিরীক ভাবে দুর্বল বা প্রতিবন্ধী লিফট ব্যবস্থা অচল হলে তারা আরো বেশি সমস্যায় পরেন। সম্প্রতি যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে ভবনের পুরোনো লিফটি আটকে যায়। এবং সেখানে আটকা পরেন অনেক শিক্ষার্থী। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় পরে তাদের সেখান থেকে বের করে আনা হয়। তবে এ ঘটনার পর থেকে অনেকেই লিফট এ আটকে পরার ভয় পাচ্ছেন। 

সংগীত বিভাগের শিক্ষার্থী জাকিয়া জাহান অর্পা বলেন, ‘আমাদের ক্লাস ৬তলায় হওয়াতে লিফট আমাদের জন্য একটি আবশ্যকীয় বিষয়। কিন্তু অনেক সময় একটি লিফট বন্ধ হয়ে গেলে সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পরতে হয় আমাদের। ৬ তলা পর্যন্ত উঠে আসতে আসতে অনেকেই হাঁপিয়ে পরেন।

উইম্যান এন্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী নুজাইরা জাহান জানান, নতুন লিফট সংযোজন হওয়াতে আমি খুব খুশি হয়েছিলাম। কিন্তু পরে দেখা যায় নতুন লিফট ই বেশিরভাগ সময় বন্ধ থাকে। তাই বাধ্য হয়ে পুরোনো লিফট এর সামনে গিয়ে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে হয়। নতুন আরো একটি লিফট সংযোজন হলে আরো ভালো হতো।

স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ফুয়াদ হাসান বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ। এখানে যদি লিফট সংক্রান্ত সমস্যাগুলো প্রবল থাকে তাহলে সেটা মেনে নেয়া যায় না।

এক ই বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী অর্ণব ঘোষ বলেন, শিক্ষার্থীদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্ব ও কর্তব্য। তাই দুটি লিফট ই যাতে সব সময় সচল থাকে সেটিই আমাদের সবার চাওয়া।

কলাভবনে শিক্ষার্থীদের ব্যবহারের জন্য দুটি লিফট সচল থাকলেও, শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। তার উপর যদি একটি কোন কারণে বন্ধ হয়ে যায় তাহলেতো বিড়ম্বনার আর শেষ থাকেনা। দুটি লিফট ই সব সময় সচল রাখা এবং আরো একটি লিফট এর সংযোজন যেনো এখন শিক্ষার্থীদের দাবি।